জিনিসপত্রের দাম কমান, মানুষকে কথা বলতে দিন

প্রধানমন্ত্রী শেখ হা‌সিনার উদ্দেশে বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল বলেছেন, ‘বেগম খালেদা জিয়াকে ছেড়ে দেন,

জিনিসপত্রের দাম কমান, মানুষকে কথা বলার স্বাধীনতা দিন। তা না হলে জনগণের যে বিস্ফোরণ ঘটবে, সেই বিস্ফোরণ থেকে রক্ষা পাবেন না।’

নিরপেক্ষ নির্বাচন ও ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিলের দাবিতে বুধবার (১০ মার্চ) রাজধানীর খিলগাঁও তালতলা মোড়ে ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপি আয়োজিত সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন।

আলাল বলেন, ‘সামনে রমজান মাস আসছে। বাজারে যান, খোঁজ নিয়ে দেখেন, জিনিসপত্রের দাম তিন-চারগুণ ইতোমধ্যে বেড়ে গেছে। পেঁয়াজ, লবণ ও তেলের দাম বেড়ে গেছে। হাসিনার উপদেষ্টাদের সঙ্গে ব্যবসায়ীরা বৈঠক করেছেন এই ফাঁকে হাজার হাজার কোটি টাকা কীভাবে লুটপাট করা যায়।’

তিনি আরও বলেন, ‘শেখ হাসিনা যেভাবে বক্তব্য দেওয়া শুরু করেছেন তাতে মনে হচ্ছে কয়েক দিনের মধ্যে বলবেন, জিয়া উদ্যানের কবর থেকে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের মারার জন্য ব্রাশফায়ার করছে। তিনি যা খুশি তাই বলে যাচ্ছেন।’

আলাল বলেন, ‘এই যে ডিজিটাল কালো আইন। এই আইনের মধ্য দিয়ে যে কুকীর্তিগুলো হচ্ছে। এই কুকীর্তি বন্ধ করার জন্য হলেও এ আইন বাতিল করা দরকার।’

আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনার উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘বিএন‌পিকে ধ্বংস করার জন‌্য পু‌লিশ‌কে লে‌লি‌য়ে দি‌য়ে‌ছেন। আপনার নিজের ঘরে যে হা-ডু-ডু খেলা হচ্ছে। সেগুলো আগে বন্ধ করেন। নোয়াখালীতে কাউয়ামুক্ত ও কাউয়াওয়ালা আওয়ামী লীগের মধ্যে লেগে গেছে।’

বিএনপির এই যুগ্ম মহাসচিব বলেন, ‘পুলিশ দুই ভাগ হয়ে গেছে। এক ভাগ বলছে মেজর সিনহাকে হত্যা করেছে ওসি প্রদীপ, আরেক ভাগ সেটার বিরুদ্ধে নারাজি দিচ্ছে। আবার হাজী সেলিমের ছেলেকে একভাগ মামলা দিচ্ছে, আরেক ভাগ ছেড়ে দিচ্ছে। এই নাটকগুলো কেন করা হচ্ছে?’

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *