দিন শেষ, আমাদের শুরু: তাবিথ

সরকারের দিন ঘনিয়ে এসেছে, আমাদের দিন শুরু হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য তাবিথ আউয়াল।

বুধবার (১০ মার্চ) বিকাল ৫টার দিকে খিলগাঁও তালতলা মোড়ে ঢাকা মহানগর উত্তর বিএনপির উদ্যোগে দেশব্যাপী নিরপেক্ষ নির্বাচন ও ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিলের দাবিতে আয়োজিত এক সমাবেশে সভাপতির বক্তব্যে এ কথা বলেন তিনি।

তাবিথ আউয়াল বলেন, নিরাপত্তা আমরা অবশ্যই চাই। আমরা কি নিরাপত্তা পাচ্ছি? আবরার নামে একটি ছেলেকে বাসচাপা দিয়ে হত্যা করা হয়, তখন আমরা আন্দোলন করে পেয়েছি—একটি নিরাপদ সড়ক ও ফুটওভার ব্রিজ।

যদি আমাদের ভোটের অধিকার ফিরে পেতে হয়, দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে আনতে হয়, তাহলে আমাদের সংঘটিত আন্দোলন গড়ে তুলতে হবে। আমাদের সরকারকে চোখে আঙুল দিয়ে দেখাতে হবে ওদের দিন ঘনিয়ে এসেছে, আমাদের দিন শুরু হয়েছে। আমি আগেও বলেছি, বাংলাদেশের সবচেয়ে ভালো দিন আমাদের সামনে। পিছিয়ে যেতে পারব না, আমরা আর পেছনে যাব না।

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, কালো আইন যেটার নাম হচ্ছে—ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন। ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মাধ্যমে আমাদের হাজার হাজার নেতাকর্মীরা জেলে আছেন। সাধারণ নেতাকর্মীরাও মামলার শিকার হয়েছেন।

আমাদের প্রাণপ্রিয় সাংবাদিক ভাই-বোনেরা নির্যাতিত হচ্ছেন, লাঞ্চিত হচ্ছেন, এই আইনের মামলায় হয়রানির শিকার হচ্ছেন। আমাদের মুক্ত চিন্তার লেখক মুশতাক আহমেদ কারাগারে মৃত্যুবরণ করেছেন। আজ পর্যন্ত বলা হয়নি তার অপরাধটা কী ছিল? বলা হয়েছে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে তাকে আটক করা হয়েছে।

নিরাপদ সড়ক আন্দোলনের কথা উল্লেখ করে তাবিথ আউয়াল বলেন, আমার ছোট ভাইরা, অয়ন ও অনিক যারা নিরাপদ সড়ক আন্দোলন করেছিল। তাদের প্রযুক্তি আইনে বন্দী করা হয়েছে। আমরা আমাদের দাবি জোরদার করব। আমাদের প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়ন করার জন্য ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন বাতিল করতে হবে। বাংলাদেশ থেকে ছুড়ে ফেলতে হবে।

বিএনপির কেন্দ্রীয় কমিটির এই সদস্য বলেন, যখন আমরা আমাদের অধিকার আদায়ের জন্য লড়াই করি না, তখন বুঝতে হবে আমরা আমাদের বড় শত্রু। আমরা যদি ঐক্যবদ্ধভাবে রুখে না দাঁড়াই আমাদের অধিকার ছিনিয়ে নেওয়া চলমান থাকবে। আমাদের অধিকার দেবে না। আমাদের ভোট কেউ নিশ্চিত করবে না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *