বিমানের সিটেই প্রস্রাব করে দিলেন যাত্রী

মহামারি করোনাকালে যাতায়াত বা ভ্রমণে নানা নিয়ম কানুন মেনে বিমানে উঠতে হয়। মাস্ক পড়াতো বাধ্যতামূলক। কিন্তু নিয়ম না মেনে মাস্কই পড়েননি। এর উপর আবার উল্টো কাহিনী ঘটিয়েছেন।

মদ্যপ অবস্থায় প্রকাশ্যে বিমানের সিটে প্রস্রাব করেছেন। যুক্তরাষ্ট্রের আলাস্কা এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইটে এমন ঘটনা ঘটে। ঘটনাটি গত ৯ মার্চের। ডেনভারে বিমানটি অবতরণের সঙ্গে সঙ্গেই ২৪ বছর বয়সী ল্যান্ডন গ্রায়ারকে গ্রেফতার করা হয়।

ডেনভারের জেলা দায়রা আদালতে গ্রায়ারের বিরুদ্ধে মামলা করা হয়েছে। মামলায় বলা হয়, কলোরাডোর বাসিন্দা গ্রায়ার আলাস্কা এয়ারলাইন্সের একটি বিমানে সিয়াটল থেকে ডেনভার যাচ্ছিলেন। বিমান ক্রু তাকে বারবার মাস্ক পরতে অনুরোধ করলেও তিনি বারবার ঘুমিয়ে পড়ছিলেন।

এর কিছুক্ষণ পরই একজন বিমান ক্রু দেখেন গ্রায়ার প্যান্ট খুলে সিটে দাঁড়িয়ে পড়েছেন। অস্বস্তিকর এই অবস্থাতেও গ্রায়ারকে সিটে বসার অনুরোধ করেন ওই বিমান ক্রু। কিন্তু গ্রায়ার বলেন, আমি প্রস্রাব করবো। এরপর সেখানেই প্রস্রাব করেন তিনি।

পরে গ্রায়ার জানান যে, বিমানে ওঠার আগে তিনি মদ্যপান করেছিল। কিন্তু নিজের বিরুদ্ধে ওঠা সব অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছেন তিনি। তার ভাষায়, বিমান ক্রুদের কথা না শোনা থেকে সিটে দাঁড়িয়ে প্রস্রাব করা, কোনও কিছুই তার মনে নেই।

এদিকে, এ ঘটনায় আদালতে হাজির হয়ে ১০ হাজার ডলারের বন্ড দিয়ে ছাড়া পেয়েছেন গ্রায়ার। আগামী ২৬ মার্চ পরবর্তী শুনানি রয়েছে। অভিযোগ প্রমাণিত হলে বিমানে অশ্লীল আচরণ ও বিমান ক্রুদের সঙ্গে দুর্ব্যবহারের জন্য গ্রায়ারের ২০ বছরের কারাদণ্ড হতে পারে। সঙ্গে আড়াই লাখ ডলার জরিমানাও।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *