বিবাহিত পুরুষের সঙ্গে প্রেম করো না, আমি ফল ভুগেছি

বলিউডে ‘বাধাই হো’ ছবির সুবাদে নীনা গুপ্তা নিজের আলাদা পরিচিতি তৈরি করেছেন। এই অভিনেত্রীর ক্যারিয়ারে নতুন করে স্টারডম ধরা দিয়েছে। ৬১ বছর বয়সী এই অভিনেত্রীর ব্যক্তিগত জীবন সবসময়ই থেকেছে আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে।

কারণ তিনি আশির দশকে ওয়েস্ট ইন্ডিজের তারকা ক্রিকেটার ভিভিয়ান রিচার্ডসের সঙ্গে চুটিয়ে প্রেম করেছেন। শুধু তাই নয়, ভিভ রিচার্ডসের সন্তানের (মাসাবা গুপ্তা) মাও হয়েছিলেন নীনা। যদিও ভিভ রিচার্ডস কোনওদিন নিজের স্ত্রী মারিয়মের সঙ্গে বিয়ে ভেঙে নীনাকে বিয়ে করেননি।

এই ঘটনা থেকে শিক্ষা নিয়ে সবসময়ই নিজের ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে মন খুলে কথা বলেন অভিনেত্রী। তার জীবন অনেকখানি খোলা বইয়ের পাতার মতো। বিয়ে না করেই মা হওয়ার কারণে সমাজের নিন্দা কুড়িয়েছেন, বলিউডও একটা সময় তাকে একঘরে করেছিল। তবে সেই সব প্রতিবন্ধকতা কাটিয়ে জীবনকে নিজের মতো করে বাঁচবার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন নীনা।

তিনি অনুরাগীদের উদ্দেশে একটা বড় উপদেশ দিয়ে বলেছেন, ‘বিবাহিত পুরুষের সঙ্গে প্রেম করো না। আমি এর ফল ভুগছি। অনেক মুশকিলের মুখোমুখি হয়েছি। মেয়ে মসাবাকে একাই বড় করতে হয়েছে তাকে।

২ মিনিট ৪ সেকেন্ড দীর্ঘ এক ভিডিও নীনা গুপ্তা বলেছিলেন, বিবাহিত পুরুষের প্রেম পড়ার পর প্রথম দিকে সব ঠিকঠাক থাকলেও কেমনভাবে সেই সম্পর্ক ভেঙে যায় যখন সেই পুরুষটি তার স্ত্রীকে ডিভোর্স দিতে রাজি হন না।

তিনি বলেন, ‘সে বলবে তার স্ত্রীকে সে পছন্দ করে না। অনেকদিন ধরে তাদের একসঙ্গে পথ চলতে সমস্যা হচ্ছে। এরপর তুমি তার প্রেমে পড়বে..সে কিন্তু বিবাহিত পুরুষ। তারপর তুমি বলবে..তোমরা আলাদ হচ্ছো না কেন? সে বলবে, আমাদের সন্তান রয়েছে, তাই আমি ডিভোর্স চাই না, দেখা যাক কী হয়!

নীনা বলেন, এরপর তোমরা লুকিয়ে লুকিয়ে দেখা করা শুরু করবে। সে (স্ত্রীকে) মিথ্যা বলে তোমার সঙ্গে ছুটি কাটাতে যাবে। ধীরে ধীরে বিষয়টা জটিল হয়ে যাবে। এরপর তুমি তার সঙ্গে রাত কাটাতে চাইবে, তোমরা হোটেলে যাবে তারপর তোমরা আরও রাত একসঙ্গে কাটাতে চাইবে এবং শেষমেষ তুমি বিয়ে করতে চাইবে। কিন্তু সে তার স্ত্রীকে ডিভোর্স দিতে রাজি হবে না।

‘সে বলবে অপেক্ষা কর বিষয়টা সহজ নয়, সম্পত্তি রয়েছে, ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টস রয়েছে। তারপর তুমি মেজাজ হারাবে,অবসাদে ভুগবে, বুঝতে পারবে না কী করবে? শেষমেষ তুমি তার থেকে দূরে সরে আসতে চাইবে কারণ তোমার জীবনে অত সমস্যা তুমি সমালাতে পারবে না। তারপর কী করবে?’

সূত্র : হিন্দুস্তান টাইমস।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *