২২ বছরের মধ্যে বিয়ে না হলে যেসব সমস্যায় পরতে হয় মেয়েদের

একটি মেয়ের জীবনের মূল লক্ষ্যই হল বিয়ে৷ এই ধারণাটাই আজও মানুষের মনে কুসংস্কারের মতো গেঁথে আছে। কথায় বলে নাকি মেয়েরা কুড়িতেই বুড়ি।

নারী আর পুরুষের সমান অধিকার আছে, এই নিয়ে তর্ক-বিতর্ক লেগেই রয়েছে , কিন্তু সমাজের তো অনেক কিছুই বদলেছে কিন্তু কিছু প্রচলতি ধ্যান ধারণা আজও রয়ে গিয়েছে –

আর এই কথাটি আমার বলার একমাত্র কারণ হলো, দেখা যায় এখন ২২ বছর বয়স হলেই মেয়েদের বিয়ে করিয়ে দেয়ার জন্য নানান দিক থেকে তাঁদের উপর চাপ আসতে থাকে।

কোনও মেয়ের বয়স একটু বাড়লেই তাঁর নিজের পরিবার, আত্মীয়, বন্ধু-বান্ধব, এমনকি পাড়া প্রতিবেশীরাও তাঁর বিয়ের ব্যাপারে এত ধরনের প্রশ্ন করে যা অনেক সময় অবিবাহিতা মেয়েদের কাছে অস্বস্তির কারণ হয়ে দাঁড়ায়।

আসুন এক ঝলকে আমরা দেখে নিই যে, ২২ বছর বয়স পেরিয়ে গেলে অবিবাহিত মহিলাদের কি কি সমস্যার সম্মুখীন হতে হয় :-

১ম, বাড়ির ভিতরেই সকালে ঘুম থেকে ওঠার পরেই রোজ রোজ মেয়ের বিয়ে না দিতে পারার জন্য বাবা-মাকে হা হুতাশ করতে শোনা যায়। অনেক সময় নিজের বাবা-মাকে এরকম চিন্তা করতে দেখে মেয়েরা নিজেরা নিজেদেরকেই অপরাধী বলে মনে করে৷

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *