বি’য়ের আসরে প্র’শাসনের লোক দেখে ভাবি হল বউ, আর বউ হল বর যাত্রী!

যার সাথে বিয়ে হওয়ার কথা সে নেই, পাশে বসে আছে তার ভাবি! নাটোরের গুরুদাসপুরে জাঁকজমক আয়োজনের মধ্য দিয়ে চলছিল বিয়ের অনুষ্ঠান।

আ,ত্মীয় ও স্বজনদের আ’নন্দ যেন ভর ধ’রছিল না। কিন্তু সে আ’নন্দে পানি ঢেলে দিলো প্রশা’সন।শুক্রবার দুপুরে উপজে’লার বিয়াঘাট ইউনিয়নের যোগেন্দ্রন,গর গ্রামে এ ঘ’টনা ঘ’টে।

এদিকে খবর পেয়ে বিয়ে বাড়ির অনুষ্ঠানে হাজির হলেন গু,রুদাসপুর সহকারী কমি’শনার ও উপজে’লা নির্বাহী অফিসার (ভা’রপ্রা,প্ত) মোহাম্ম’দ নাহিদ হাসান খান। প্রশা’সনের গাড়ি দেখে মু’হূর্তের মধ্যেই বদলে গেলো কনে।

শুধু তাই নয় যে ই’মাম কবুল পড়াবেন তিনি এসি, ল্যান্ডকে দেখেই ভোঁ দৌড়। কনের জায়গায় কনের ভাবিকে বসিয়ে শুরু হয় নাট’কী’য় অ’ভিনয়।

ওই কনের ভাবীকে কনে বলে পরিচয় দিলে তাকে এবং কনের ভাইকে আ’ট’ক করে জি’জ্ঞাসাবাদের জন্য নিয়ে আসা হয় উপজে’ লায়।জি’জ্ঞাসাবাদে জা’না গেছে, কনে বিউটিকে পা’লিয়ে দিয়ে তার ভাবি শ্রাবণী কনে সেজে কনের জায়গায় বসেছিলেন জা’না যায়,

শুক্রবার দুপুরে উপজে’লার বিয়াঘাট ইউনিয়নের যোগেন্দ্রনগর গ্রামে দশম শ্রেণিতে পড়ুয়া ১৬ বছরের এক ছা’ত্রীর বাল্য বিয়ে অনুষ্ঠিত হচ্ছে জা’নিয়ে ফোন করা হয় উপজে’লা নির্বাহী অফিসার তমাল হোসেনের কাছে।পরে তার খবরে উপজে’লা নির্বাহী অফিসার (ভা’রপ্রা’প্ত) মোহাম্ম’দ নাহিদ হাসান খান ওই

বাল্যবিয়ের অনুষ্ঠানে গিয়ে কনেকে না পেয়ে কনে সেজে বসে থাকা কনের ভাবি ও তার ভাইকে আ’ট’ক করে নিয়ে আসে। পরে তাদের ৫ হাজার টাকা জ’রিমানা করে মুচলেকা নিয়ে ছে’ড়ে দেয়া হয়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *